ইউসুফ আলী প্রধান
আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২৫, ২৬ ও ২৭ নং ওয়ার্ড সরংক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদ প্রার্থী মোসামৎঃসানিয়া সাউদ ,বলেন আমার কোন সময় ইচ্ছে ছিলোনা জনপ্রতিনিধি হওয়ার।কিন্তু আমি২৫.২৬ ও ২৭ নং ওয়ার্ডবাসী ও গন্যমান্ন ব্যক্তিবর্গের অনুরোধের কারনে নির্বাচন করেতে ইচ্ছা পুষন করছি।

তাদের ভালবাসায় নির্বাচনে অংশ গ্রহন করে গত বার নির্বাচন করে মহিলা কাউন্সিলর নির্বাচিত হতে পারি নি। হয়তো আল্লাহ চাইলে এবার ও হতে পারি বা না হতে পারি সেটা নির্বর করবে আপনাদের ভালবাসার উপরে। নির্বাচন মানেই জয় পরাজয়ের খেলা। কেউ হারবে কেউ জয়ী হবে।আমার সত্যি বলতে অনেক আনন্দ লেগেছে আমাকে যে ভাবে ভালবাসে গত বার ২৫ ২৬ ও ২৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা যে ভাবে ভোট দিয়েছে আমি সত্যি আনন্দিত খুশি ।

হয়তো এবার ও আমাকে তারা মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চায়।সত্যি ২৫.২৬ ও ২৭ নং ওয়ার্ড বাসীর ভালবাসার কারনে, আমাকে তারা এইবার ও নির্বাচন করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে অনেকে।আল্লাহ যা ভালো মনে করবে তাই করবেন।এই মনে করি মানুষের ভালবাসা পেয়ে সত্যি আমি মুগ্ধ।আমার সত্যি ইচ্ছা বাঁচবো আর কয়দিন এই পৃথিবীর বুকে ভালো কিছু যদি ওয়ার্ডবাসীর ও সমাজের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যেতে পারি এটাই সব থেকে বড় পাওনা।

আমার সর্বত্র ইচ্ছা ছিলো মানুষের সেবা করার।আমি চেষ্টা করি সব সময় আমি ক্ষুদ্র একজন মানুষ আমার সামর্থ্য অনুযায়ি অসহায় মানুষের পাশে থেকে সেবা করার।কিন্তু বিশ্বাস করেন আল্লাহর দেওয়া এই মহামারী করোনাকালীন সময় মানুষ কি ভাবে জীবন জাপন করছে তা দেখেছি ।

আমার নিজের সামর্থ যতটুকু পেরেছি তা দিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে ছি আল্লাহ হয়তো আমাকে দিয়েছেন সামর্থ্য তাই করেছি। এই টুকু বুঝেছি যে জনপ্রতিনিধি না হয়ে ও অসহায় মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়িয়ে যে হাসিটা তাদের মুখে দেখেছি তাতে করে,আমি মনে করি আমি ধন্য কারন আল্লাহ হয়তো ২ বার নির্বাচিত করে আমাকে কাউন্সির করেনি। সামনে করবেন কি না জানি না তা আল্লাহ পাক ভালো জানেন, তাই আপনাদের সেবা করতে চাই সেই সুযোগ আপনাদের কাছেই চাই আমি আরেক বার দোয়া চাই।

আসলে আমার মনে মানুষকে যে ভাবে সহযোগীতা করতে ইচ্ছা করেছে আসলে হয়তো আমি সে ভাবে সহযোগীতা করতে পারি নি।এইবার ও সেই ২৫,২৬ ও ২৭ নং ওয়ার্ডবাসীর অনেক সাধারন মানুষ এবং যুবসমাজ ও বৃদ্ধ বাবা সমতুল্য ময়মুরুব্বি মা বোনদের চাপে আবার আমি নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২৫.২৬.২৭ নং ওয়ার্ডে সরংক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে অশং গ্রহন করতে রাজি হয়েছি।অসহায় মানুষ যখন কোন বিপদে পড়ে আমার কাছে আসে চেষ্টা করি তাদের জন্য কিছু করার কতটুকু করতে পারি জানি না আল্লাহ রাব্বুল আলামীন ভালো জানেন।আমি দল ধর্ম কর্ম দেখি না আমি তাকে একজন আল্লাহার সৃষ্টির সেরা জীব মানবজাতি মানুষ হিসেবে তাকে দেখি।আপনারা যদি দোয়া করেন ও আপনারা মন থেকে মনে করেন আপনাদের একজন মনের মতো মানুষ পেয়েছেন, জনপ্রতিনিধি না সেবক হতে চাই।

কারন মানব সেবা পরম ধর্ম তাই মানুষের সেবা কারার যদি আল্লাহ সুযোগ দেন করবো ইনশাআল্লাহ।সানিয়া সাউদ আরো বলেন আপনারা সবাই আমার আপন জন আমি এই ২৫ নং ওয়ার্ড এরই সন্তান কারো ভাই কারো ভাতিজি কারো মামি,কারো ছোট বোন,আমার সাথে কারো কোন ব্যক্তিগত জীবনে চলার পথে কোন শত্রুতা নেই।আমি অতিতেও আপনাদের পাশে ছিলাম ভবিষ্যতেও আল্লাহ যদি আমাকে বাঁচিয়ে রাখে পাশে থাকবো যতদিন আল্লাহ বাঁচিয়ে রাখেন পাশে আছি বিপদে ও পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ। পৃথিবীর বুকে কেউ চিরদিন বেঁচে থাকবে না, একদিন চলে যেতে হবে সবাইকে কেউ আগে কেউ বা পরে,তাই আমি মানুষের কল্যাণে এমন ভাবে কাজ করে যেতে চাই যেন আমার মৃত্যুর পর ও মানুৃষের মুখে মুখে বলে আসলে মহিলা টি ভালো ছিলো।আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন নং ওয়ার্ড বাসীর সেবা করতে পারি এবং আপনারা আমাকে সেবা করার জন্য আবার সুযোগ করে দিবেন।আল্লাহ কাছে এই দোয়া প্রার্থনা করি যেন মানুষের সেবা মৃত্যুর দিন ও করে যেতে পারি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.