ডেক্স রিপোর্টঃ
পাগলায় শ্রমিকলীগ নেতা পলাশের বিরুদ্ধে মিরুর সংবাদ সম্মেলন
ফতুল্লার পাগলা তালতলা গরুর হাটের সামনে ট্রাক টার্মিনালের সীমানা প্রাচীরে গরু বাঁধাকে কেন্দ্র করে কয়েকজন গরুর বেপারীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় নেতা কাউছার আহম্মেদ পলাশের বিরুদ্ধে। ঘটনার প্রতিবাদে হাট কমিটি সংবাদ সম্মেলন করে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।
ঘটনাটি ঘটেছে রোববার দুপুরে ফতুল্লার পাগলা তালতলাস্থ ট্রাক টার্মিনালের সামনের রাস্তায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পাগলা তালতলাস্থ ট্রাক টার্মিনালের সীমানা প্রাচীরের গ্রীলের সাথে বাঁশ বেঁধে ওই বাঁশে সাথে গরু বাঁধা হয়। শ্রমিক লীগ নেতা কাউছার আহম্মেদ পলাশ রোববার (১৮ জুলাই) দুপুর একটার দিকে কিলার আক্তারসহ কয়েকজন সহোযোগিকে নিয়ে এসে ফরিদপুর থেকে হাটে আসা খলিল শেখ, ওসমান শেখ, আজগর মোল্লা মোয়াজ্জেম নামক চার গরু ব্যবসায়ীকে মারধর করে এবং গরু বাধার বাশ ভাংচুর করে সেখান থেকে তাদেরকে তাড়িয়ে দেয়।

এ ঘটনার একটি ভিডিও ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিওটিতে শ্রমিকলীগ নেতা কাউছার আহমেদ পলাশকে দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। এবং তিনি হাট কমিটির লোকজনকে গালমন্দের পাশাপাশি নিজ কমিটির সাধারন সম্পাদককেও গালমন্দ করেন। এ সময় তিনি বলেন ‘কোথায় সাধারন সম্পাদক।পাছায় লাথি মেরে ওর পাছার সব দাত ফেলে দিবো।আমি সভাপতি হয়ে এখানে এসেছি অথচ সাধারন সম্পাদক হয়ে সে কার….. ফালায়………..খারাপ লোক।’

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে হাট কমিটি বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তালতলা মাদ্রাসা সংলগ্ন টার্মিনালের সামনে সাংবাদিক সম্মেলন করেন।
সাংবাদিক সম্মেলনে তারা বলেন, পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে শ্রমিক লীগ নেতা কাউছার আহম্মেদ পলাশ চিহ্নিত সন্ত্রাসী পেশাদার কিলার আক্তারসহ কয়েক সহযোগি সন্ত্রাসীকে নিয়ে তালতলা টার্মিনালের সামনে এসে কয়েকজন গরু ব্যবসায়ীকে মারধর করে এবং গরু বাধাঁর বাশ ভাংচুর করে তাদেরকে তাড়িয়ে দেয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন হাট ইজারাদার মীর হোসেন মিরু, কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী জসিম উদ্দিন, কুতুবপুর ইউনিয়ন ৪, ৫,ও ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন হাওলাদার, কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি মোজাফফর, আব্দুল হক সিকদার, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ইউনুস দেওয়ান প্রমূখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *