মোহাম্মদ এরশাদুল হক পটিয়া চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ

পটিয়ার নাইখাইন গ্রামের সিরাজ মুন্সির বাড়ির জাহাঙ্গীর আলমের কন্যা গত ৪ বছর আগে ভালো বেসে বিয়ে করেন প্রেমিক মোঃ আমজাদ হোসেন কে।

আমজাদ চন্দনাইশ উপজেলার কাঞ্চননগর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড পল্লান পাড়ার আবুল হোসানের ছেলে। যৌথুক নির্যাতনের শিকার তাহমিনা আকতার (২৮) বাদী হয়ে গত ২৭ জুলাই স্বামী মোঃ আমজাদ হোসেন, শশুর আবুল হোসেন, শাশুড়ী
রাবেয়া বেগম, ননদ বেবি আকতার, ববি আকতার, আকলিমা আকতার বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকার যৌথুক নির্যাতনে অভিযোগ পটিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে সিআর মামলা নং ৩৪৭/২২ ইং দায়ের করেন।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে বিষয়টি তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য পিবিআই কে দায়িত্ব দেন। পিবিআই একটি টিম বিষয়টি তদন্তের জন্য প্রবাসী আমজাদ হোসেনের বাড়িতে গত ২২ জুলাই যান। এতে আমজাদ ঘর থেকে পালিয়ে যান বলে মামলার বাদিনীর পিতা জানান। বর্তমানে ঘটনাটি পিবিআই তদন্ত করলে তাহমিনার আকতারের স্বামী আমজাদ হোসেন বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন বলে বাদিনীর অভিযোগ।

সুএে জানাযায়, আমজাদ হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন সবাই মিলে বিভিন্ন তারিখ ও সময়ে ৫ লাখ টাকা যৌথুক দাবি এবং টিভি, ফ্রীজ, ফার্নিচার দাবি করে তাহমিনা আকতার কে শারীরিক মানসিক নির্যাতন করে আসছিলেন।এমনকি তাদের অসৎ উদ্দেশ্যে হাসিল করতে তাহমিনা আকতারের ৩ বার পেটের সন্তান নষ্ট করেন বলে তসহমিনার অভিযোগ। সে তার স্বামী, শশুর শাশুড়ী ননদ এর বিচার দাবি করেন এবং যাতে তার স্বামী বিদেশে পালিয়ে যেতে না পারে তাকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *