ইন্দ্রজিৎ টিকাদার বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি ঃ
খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ হারুনুর রশীদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশের জন্ম হতো না ।

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে যে সময়ে ক্ষুধা দারিদ্র মুক্ত সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখছিলেন, ঠিক সেই সময়ে সেনাবাহিনীর কিছু বিপথগামী সদস্যরা ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বপরিবারে হত্যা করে আ’লীগকে চিরতরে নিঃশ্বেষ করে দিতে চেয়েছিল । কিন্তু আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে মডেল হিসেবে প্রসংশিত হচ্ছে । শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত হয়ে দেশ এখন বিশ্বে স্বল্প উন্নত দেশের গন্ডি পেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত হয়েছে ।

যা আগামী ২০৪১ সালে বিশ্বে উন্নত বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে উঠবে । উপজেলা আ’লীগের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকীতে গতকাল সোমবার বিকাল চারটা স্থানীয় উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ম হল রুমে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা গুলি বলেন । উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সম্মানিত অতিথি ছিলেন জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি ও জাতীয় সংসদের হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাস এমপি । প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সুজিত কুমার অধিকারী ।

উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ হালদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট নিমাই চন্দ্র রায়, জেলা আ’লীগের যগ্ম- সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামরুজ্জামান জামাল, জেলা আ’লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট নবকুমার চক্রবর্তী, জেলা আ’লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক শ্রীমন্ত অধিকারী রাহুল, জেলা আ’লীগের সদস্য মোঃ জামিল খান, জেলা আ’লীগের শিউলি সরোয়ার । অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক ফিরোজুর রহমান, প্রদীপ বিশ্বাস, মৃন্ময় পাল, মীর মোহাম্মদ আলী, যুগ্ম-সম্পাদক পলাশ রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক অনুপ গোলদার, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন ইমু, মহিলা আ’লীগ নেত্রী জয়ন্তী রাণী, শিব পদ মন্ডল,রাজ কুমার রায়, দেবপ্রসাদ বিশ্বাস, বিএম মাসুদ রানা, গোবিন্দ মল্লিক, সুধাংশু রায়, অরিন্দম গোলদার, মিজানুর রহমান মিজান, নারায়ন চন্দ্র সরকার, বিধান রায়, ভগবতী গোলদার, মোস্তাফিজুর রহমান, মিজানুর রহমান মিজান, ছাত্রলীগ নেতা আমিনুর মোমিন রানা ও শেখ রেজওয়ান রেজা প্রমূখ ।

অপরদিকে সকাল ৯ টায় উপজেলা প্রশাসন ও পরিষদের আয়োজনে নির্বাহী অফিসার মোঃ মমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাস এমপি । বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম খান, ভাইস চেয়ারম্যানদ্বয় নিতাই গাইন ও চঞ্চলা মন্ডল, অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহ্ জালাল, সাবরেজিষ্ট্রার মোঃ মমিনুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডারদ্বয় বীরমুক্তিযোদ্ধা আফজাল হোসেন ও বীরমুক্তিযোদ্ধা বিনয় কৃষ্ণ সরকার । অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ রবিউল ইসলাম, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মনিরুল মামুন,প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ প্রীতি লতা দাস, প্রকৌশলী মোঃ রেজাআনুর রহমান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ ইমদাদুল হক, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নারায়ন চন্দ্র মন্ডল, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জিএম আলমগীর কবির,সমাজ সেবা কর্মকর্তা মোঃ মনিরুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হাসি রাণী রায়, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রতাপ ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রজিৎ টিকাদার, বীরমুক্তিযোদ্ধা নিরঞ্জন কুমার রায়,গৌর পদ টিকাদার প্রমূখ।

অনুষ্ঠানের পূর্বে মুক্তিযুদ্ধ কমপ্লেক্স ও উপজেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন । অন্যদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় বটিয়াঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আয়োজনে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে এক বর্ণাঢ্য রেলি, আলোচনা, রোগীদের উন্নত খাবার পরিবেশন, বিনামূল্যে চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয় এবং প্রত্যেক কমিউনিটি ক্লিনিকে শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত হয়েছে । এছাড়া সুরখালী ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন লিটুর সভাপতিত্বে দিনটি নানা বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে । অপরদিকে বটিয়াঘাটা দলিল লেখক সমিতির আয়োজনে সমিতির সভাপতি মোঃ আমিনুল ইসলাম অপু সভাপতিত্বে শাহাদাৎ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.