ডাসার উপজেলা প্রতিনিধি:

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলাধীন গোপালপুর ইউনিয়নের গণটিকাদান কেন্দ্রে দু’গ্রুপের মধ্যে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়েছে। গোপালপুর ইউনিয়নের বরাদ্ধকৃত টিকা দায়িত্বপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য সহকারী মোঃ সাহাদাত হোসেন স্বেচ্ছাচারিতা করে অন্য এলাকার লোকজনের মাঝে টিকা প্রদান করায় এ ঘটনা ঘটেছে।খবর পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুস সোবহান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। আজ সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।
সরেজমিন ও ভূক্তভোগী সূত্রে জানা গেছে, ডাসার উপজেলার গোপারপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে সাবেক (১.২.৩) গণটিকাদান কেন্দ্রে সকালে টিকা দেয়া শুরু করেন কেন্দ্র পরিদর্শন কারী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের (এইচ আই) স্বাস্থ্য সহকারী মোঃ সাহাদাত হোসেন। তিনি স্বেচ্ছাচারিতা করে তার নিজের লোক কালকিনি পৌরসভাসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের লোকজনের মাঝে গোপন ভাবে গোপালপুর ইউনিয়নে বরাদ্ধকৃত টিকা তাদের প্রদান করেন।এ ঘটনা গোপালপুর ইউনিয়নের লোকজন দেখতে পেয়ে প্রতিবাদ জানালে পরে এ ঘটনা নিয়ে দু’গ্রুপের মধ্যে বিশৃঙ্খলার ঘটনা ঘটে।পরে গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ফরহাদ হোসেন মাতুব্বর এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

টিকা গ্রহণ করতে এসে ইউসুফ বলেন, আমাদের ইউনিয়নের বরাদ্ধকৃত টিকা স্বাস্থ্যকর্মী সাহাদাত হোসেন পৌরসভাসহ অন্য ইউনিয়নের লোকজনকে দিয়ে দিছে।এখন আমরা আমাদের টিকা পাচ্ছি না।

এ বিষয়টি স্বাস্থ্য সহকারীর কাছে ইউপি চেয়ারম্যান জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, পৌরসভা ও অন্য ইউনিয়নের লোকজনকে টিকা দিলে সমস্যা কোথায়।

চেয়ারম্যান আরো বলেন, আমাদের যে সীমিত টিকা দেয়া হয়েছে, তা যদি পৌরসভাও অন্য ইউনিয়নের লোকজনকে দেয়া হয় তাহলে আমার ইউনিয়নের জনসাধারন ঠিকমত পাবে না। তাই আমি এ বিষয় প্রতিবাদ করলে স্বাস্থ্যকর্মী আমার সাথে উল্টো তর্কাতর্কি শুরু করে দেয়।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরবিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুস সোবহান বলেন, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি।গোপালপুর ইউনিয়নের টিকা অন্য এলাকার লোকজনের মাঝে দেয়া হয়েছে এ ঘটনার সত্যতা পেয়েছি।তবে গোপালপুরের জনগন যাতে টিকা দিতে পারে অতিশীঘ্রই তার ব্যবস্থা করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *