মোঃ এনামুল হক নড়াইল জেলা।

নড়াইলে ভ্রাম্যমান আদালতে বাসচালককে জরিমানা করায় যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে শ্রমিকরা।
শনিবার সকাল ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নড়াইল লক্ষীপাশা সড়কের মালিবাগ মোড়ে এ ঘটনাটি ঘটে। তবে মারপিট করে চালকের শরীলের পিঠের নিচের অংশে এবং অন্যান্য জায়গাতে তাকে আহত করে। সুষ্ঠ বিচার না হওয়া পর্যন্ত শ্রমিকেরা রাস্তায় থাকার ঘোষনা দিয়েছেন।

নড়াইলের মালিবাগ মোড়ে শনিবার সকাল ১০ টার পর জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট শিবুপদ দাস কালিয়া সড়কের একটি বাসগাড়ি (ঢাকা মেট্রো জ ১৪-০০-০৪০) এবং রেলওয়ের কাজে নিযুক্ত একটি গাড়িকে আটকায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

কালিয়া রুটের গাড়ির চালকের কাছে কাগজ চাইলে কাগজ দিতে কিছু সময় দেরি হয় এই অবস্থায় ম্যাজিস্ট্রেট সাথে থাকা আনসারদের নির্দেশ দিলেন হেলপার মশিয়ার কে মারার।

সেই সাথে ম্যাজিস্ট্রেট নিজেই মারধর করে উপস্থিতি জনাতার সামনে। গাড়ীর ড্রাইভার আহাদকে শাটের কলার ধরে টেনে নিজ গাড়িতে তুলে নেয়।তাৎক্ষণিক ক্ষমতা প্রয়োগ করলেন ২ বছরের জেল এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এই ঘটনার পর সড়ক অবরোধ করে রাখে শ্রমিকরা।

এই ঘটনার পর অতিরিক্ত পুলিম সুপার মোঃ রিয়াজ,সদর থানার ওসি সহ বিভিন্ন কর্মকর্তা এবং অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সুমি মজুমদার ঘটনাস্থলে আসেন। তারা বাস মালিক ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দের সাথে কয়েক ঘন্টা আলোচনা করে ঘটনার বিষয়টি মিমাংশার আশ্বাস দেন।নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জেল এবং জরিমানা প্রত্যাহারের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় শ্রমিকরা।

মশিয়ার নামে এক শ্রমিককে পেটানোর অভিযোগে জেলা বাস মালিক সমিতির সাঃসম্পাদক কাজী জহিরুল হক বলেন ম্যাজিস্ট্রেট শিবুপদ দাস সড়কে এক ধরনের চাঁদাবাজি, স্টাইলে শ্রমিককে মারধর করেছে।

সর্বসাধারনের ও পথচারীদের বক্তব প্রতিনিয়ত পুলিশ, ট্রাফিক সার্জেন্ট,ম্যাজিস্ট্রেট,করোনার সময় একটা ব্যবসা পরিনত করেছে। বিশেষ করে নড়াইল জেলায় এ রকমের প্রশাসন ব্যবসা শুরু করেছে। বিনা কারনে পুলিশ সাধারন মানুষকে হয়রানীমূলক কাজ করতেছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দোশ্য করে বলেন এধরনের অপরাধ বন্ধের দাবী তুলে ধরেন।

এদিকে নড়াইল জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান জানান এভাবে চললে সড়ক কোন আইনই বাস্তবায়ন করা সম্ভব নয়। শ্রমিকদের কোন অভিযোগ থাকলে বিস্তারিত শুনে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ সকল বিষয়ে আগামীকাল রোববার দুপুরে আমরা উভয় পক্ষকে নিয়ে বসবে এবং বসার জন্য ঠিক করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *