ভারত থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পঞ্চাশ তম মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের স্বরনে ভারতের সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে বিজয় মশাল উপহার দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ভারতের নৌবাহিনীর ওয়েস্ট কমান্ডার ভাইস এডমিরাল শ্রী হরি কুমার।

তিনি বলেন, ১৯৭১, সালে ভারত বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় সেদেশের মুক্তি কামী মানুষ ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে ছিলেন। এবং পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধাদের সাথে থেকে লড়াই করে ছিলেন।

এবং দীর্ঘ আট ধরে ভারত বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের পাশে থেকে তাদের সামজিক ও রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক ও সামরিক বাহিনী দিয়ে বাংলাদেশ কে স্বাধীন করতে সাহায্য করেন। তাই নয় বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারত সরাসরি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধাদের সাথে যুক্ত হয়ে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে আকাশ পথে ও জলপথ এবং স্থল পথে সামনাসামনি লড়াই করে বাংলাদেশ কে স্বাধীন রাষ্ট্র করে ছিল।

সেই গৌরব কে স্বরূপ ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী উদ্ধভ বাবাসাহেব থ্যাকার কে বাংলাদেশের বিজয় আকা ভারতের সোনার মশাল উপহার হিসেবে দেওয়া হবে। এই মশাল ভারতের গেট ওয়ে অফ ইন্ডিয়া পৌঁছে যাবে সেখান থেকে ভারতের তিন বাহিনীর প্রধান মিলে ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী উদ্ধভ বাবাসাহেব থ্যাকার কে স্বাগত জানাবে।

কারণ ভারত বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় বোম্বাই বন্দর পাকিস্তানের জন্য বন্ধ করে দেয়। এবং ভারতের জল পথ বন্ধ করে দেয় সামরিক বাহিনীর জন্য। যায় ফলে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর স্যাটেলাইট বেতার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পাকিস্তান কোন সামরিক বাহিনীর জন্য কোন কিছু দিতে পারেননি। সেই সঙ্গে ভারতের আকাশ পথে কোন পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর বিমান প্রবেশ করতে দেয়নি।

যায় জন্য পাকিস্তানের কোন সামরিক রসদ সরবরাহ করতে না পারার দরুন বাংলাদেশের মাটিতে ভারতের সামরিক বাহিনীর ও বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধাদের কাছে পরাজিত হয়। সেই বিজয় অর্জন লাভ কে কেন্দ্র করে এই মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের বিজয় সোনার মশাল উপহার দেওয়া হবে মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী উদ্ধভ বাবাসাহেব থ্যাকার। এই তথ্য জানিয়েছেন ভারতের গুজরাট ও গোয়া রাজ্যের ভারতের সামরিক বাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল শ্রী এস কে পরশর।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *