আনোয়ার হোসেন আকাশ,
রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিডাঙ্গী উপজেলায় চেয়ারে বসাকে কেন্দ্র করে ঠাকুরগাঁও যুবদলের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কমপক্ষে পাঁচজন আহত হয়েছে। শুক্রবার (৫ আগষ্ট) রাতে এ ঘটনা ঘটলেও আহতদের মধ্যে গুরুতর উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ওমর ফারুক পান্নাকে ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে খবর ছড়িয়ে পরে। তবে অন্যান্যরা স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

ঘটনার সময় ঘটনাস্থলে পুলিশের হস্তক্ষেপে সংঘর্ষ বন্ধ হয় বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। ঘটনার বিষয়ে উপজেলা বিএনপি’র দপ্তর সম্পাদক মকবুল হোসেন জানান, সন্ধ্যায় দলীয় কার্যালয়ের ভিতরে যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ওমর ফারুক পান্নাসহ কয়েকজন সিনিয়র নেতারা চেয়ারে বসেছিল।

সেখানে চেয়ার থেকে উঠতে বলায় যুবদলের নেতাকর্মীদের বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এরপর সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। অসুস্থ উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ওমর ফারুক পান্না জানান, কোন কারণ ছাড়াই দলীয় কার্যালয়ের ভেতর আমাকে বেধরক মারধর করে মাথা ফাটিয়েছে। আমি সুস্থ্য হলে মহাসচিবের কাছে বিচার চাই চাইবো।

উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ড. টিএম মাহাবুর রহমান বলেন, আমি এলাকার বাইরে আছি। সন্ধ্যায় এলাকায় যাবো। মারপিটের ঘটনাটি মোবাইলে শুনেছি। বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি খায়রুল আনাম ঢাকাপ্রকাশ-কে বলেন, বিএনপি কার্যালয়ে সংঘর্ষের ঘটনা কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.