ভারত থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।
গত কয়েক দিন হল মহারাষ্ট্রের শিবসেনা জোট সরকারের মন্ত্রী একনাথ শিল্ডে কিছু শিবসেনা বিধায়ক নিয়ে সরে পড়েছে জোট সরকার কে ফেলার জন্য। এই শিবসেনা বিধায়ক একনাথ শিল্ডে একদিকে শিবসেনা নেতা ও জোট সরকারের মন্ত্রী। তিনি বিজেপির সাথে যোগাযোগ করে দুই দিন আগে মহারাষ্ট্র রাজ্যে থেকে কিছু শিবসেনা বিধায়ক কে নিয়ে প্রথমে গুজরাট রাজ্যেতে যান।

সেখান থেকে তিনি তার অনুগামীদের নিয়ে ভারতের পূর্ব রাজ্যে বি জে পি শাসিত অসমে যান। সেখানে গুহাটির একটি বিলাশবহুল হোটেলে উঠেছে। এবং এই সব দলছুট বিধায়কদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা করতে সবধরনের চেষ্টা করছে। তবে মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকুরে যেদিন থেকে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন সেই দিন থেকে বিজেপি সরকার তাঁকে ফেলার জন্য চক্রান্ত করতে থাকে বলে জানিয়েছেন শিবসেনা নেতৃত্ব।

বর্তমানে মহারাষ্ট্র রাজ্যের শিবসেনা এবং ভারতের জাতীয় কংগ্রেস ও এন সি পি জোট সরকারের সরকারের পরিচালনা করেছেন শিবসেনা নেতা মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকুরে। বিগত লকডাউনের সময় এবং পরবর্তীতে মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন যায়গায় ভয়াবহ বন্যার পানিতে প্লাবিত মানুষের সাহায্য করতে সবধরনের চেষ্টা করছে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকুরে। এখনো পর্যন্ত মহারাষ্ট্র রাজ্যের আম আদমি মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকুরের উপর আস্তা রেখেছে।

তবে মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকুরের উপর আস্তা রেখেছে ভারতের জাতীয় কংগ্রেস ও এন সি পি নেতৃত্ব। তারা জোট সরকার কে বাচাঁতে সবধরনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের বিধায়ক ও এন সি পি বিধায়কদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা দিতে বম্বের হোটেলে উঠেছে সব বিধায়করা।

সেই সাথে শিবসেনা বিধায়করা যারা দলছুট হয়েছে তাদের কে ফিরে আসার চরম সীমা দিয়েছেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত এবং মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকুরে।তবে মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকুরে নিজের প্রতি আস্তা রেখেছে এবং এই সঙ্কট থেকে বেরিয়ে আসার রাস্তা খুলে রেখেছে । যদি এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয় তার জন্য সরকার কে ভেঙে দিয়ে ফের আম আদমি র কাছে যেতে তৈরি আছে তার জোট সরকার।।

Leave a Reply

Your email address will not be published.