আঃ হামিদ মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার পার্শবর্তী ঘাটাইলের বগা ডেংরাচালা এলাকায় প্রতিপক্ষের হামলায় পিতা সহ দুই ছেলে আহত হওয়ার ঘটনায় ২ দিন মৃত্যুর সাথে পান্জা লড়ে অবশেষে বৃহস্পতিবার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্হায় সন্ধায় মারা গেল নাজমুল হোসেন(১৯)।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে আব্দুল বাছেদ এর ছেলে নাজমুল ইসলাম ও সোহেলের সহিত একই এলাকার আব্দুল বেলালের ছেলে হৃদয়, মমিন ও মালেকের ছেলে জুয়েল এবং সোহেল এর সহিত চার পাচ দিন আগে খেলার মাঠে কথা কাটি হয় এবং হাতা হাতি হয়।

এর জের ধরে বিবাদী বেলাল তার ছেলে হৃদয়, মমিন,মালেক এবং তার ছেলে জুয়েল, সোহেল ১৭ আগষ্ট সন্ধায় আব্দুল বাছেদ ও তার দুই ছেলে সোহেল নাজমুলকে ওই এলাকার সামছুলের বাড়ীর সামনে রাস্তায় আটকিয়ে এলোপাথারী ভাবে লাঠি দ্বারা মারপিট করে এতে তারা তিনজনই গুরুতর আহত হয়। আহতদেরকে স্হানীয়রা উদ্ধার করে ঘাটাইল হাসপাতালে পাঠায়। আহতদের মধ্যে সোহেল ও নাজমুলের অবস্হা আশংকাজনক হলে কর্তব্যরত চিকৎসক তাদেরকে উন্নত চিকৎসার জন্য টাঙ্গাইল রেফার্ড করেন। কর্তব্যরত ডাক্তার নাজমুলের অবস্হা আশংকা জনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা ম্যাডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। ঢাকা ম্যাডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্হায় বৃহস্পতিবার (১৯ আগষ্ট) নাজমুল হোসেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। শুক্রবার (২০ আগষ্ট) বিকেল ৫টার দিকে তার লাশ বাড়ীতে আনা হলে আত্বীয় স্বজনদের আহাজারীতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। পরে রাতে পারিবারিক কবরস্হানে তার লাশ দাফন করা হয়। এ ঘটনায় ঘাটাইল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশ দাফনের সময় ঘাটাইল থানা পুলিশ কর্মকর্তাগন উপস্হিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *