আনোয়ার হোসেন আকাশ,
রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার বারোঘরিয়া বাজারে নিজ দোকানে গলায় ফাঁস দিয়ে আকালু চন্দ্র রায় (৪৭) নামের এক মুদি ব্যবসায়ী মারা গেছেন। বুধবার (৫ জুন) সকাল আনুমানিক ১০ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

পরিবারের সদস্যরা সাংবাদিকদের জানান, বেশ কিছিদিন ধরে তিনি মানসিকভাবে সমস্যায় ভুগছিলেন। অতিরিক্ত ঋণের চাপ সহ্য করতে না পেরে সে আত্মহত্যা করতে পারে। সকাল ১০টার সময় তার স্ত্রী তাকে ভাত খাওয়া জন্য দোকানে ডাকতে আসলে আকালু চন্দ্র রায় কে দোকানের ভেতর গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে থাকতে দেখে। পরে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করেন।

তারা আরও জানান, প্রতিদিনের মতো আজকেও সকাল করে দোকানে চলে যায় কিন্তু আজকেই তার জীবনের শেষ দোকানদারি তা আমরা ভাবতে পারিনি।

ওই বাজারের কিছু ব্যবসায়ী আমাদের আরও জানান, আকালু চন্দ্র রায় অনেক নরম মনের মানুষ। সে কারও সঙ্গে কখনো কোনো গোলমাল করেনি। সকলের সঙ্গে হাসিঠাট্টার মধ্যে মিলেমিশে থাকতেন। অমল দাসের এ মৃত্যু আমরা মেনে নিতে পারছি না। অতিরিক্ত ঋণের চাপ সহ্য করতে না পেরে কাউকে কিছু না বলে সকালে নিজ দোকানে এসে দোকানের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

মৃত আকালু চন্দ্র উপজেলার ৩নং হোসেনগাঁও ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বারোঘরিয়া এলাকার মৃত ছতিশ চন্দ্র রায়ের ছেলে।

রানীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জয়ন্ত কুমার সাহা বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। পরিবারের সদস্যদের কোন আপত্তি না থাকায় এডিএম এর অনুমতি সাপেক্ষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *