মোহাম্মদ এরশাদুল হক লোহাগাড়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় স্কুল শিক্ষার্থীকে ইভটিজিং এর দায়ে এক ইভটিজারকে ৬ মাসের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।এসময় এক আনসার সদস্য আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।২২ সেপ্টেম্বর সকালে ভ্রাম্যমাণ আদালতে এ অভিযান পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফ উল্যাহ।

দণ্ডপ্রাপ্তের নাম রিদুয়ান (১৯)। সে উপজেলা সদরের পুরাতন থানা এলাকার মুহাম্মদ ইউনুচের পুত্র।

জানা যায়, মোঃ রিদোয়ানসহ তার কয়েকজন বন্ধুকে সাথে নিয়ে শাহপীর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় গেইটের সামনে ছাত্রী পরীক্ষার্থীদেরকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল।খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফ উল্যাহ এবং লোহাগাড়া থানা পুলিশের টিম সেখানে যান।ভ্রাম্যমাণ আদালতের সাথে সিভিল ড্রেসে থাকা আনসার সদস্যরা তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলে।

এসময় আনসার সদস্য আহত হয়।ভ্রাম্যমাণ আদালতে দোষস্বীকারোক্তির প্রেক্ষিতে তাকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।
সাজা প্রদান শেষে আসামিকে জেল হাজতে প্রেরণের নিমিত্তে লোহাগাড়া থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হয়।

অভিযানকালে লোহাগাড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা(পিআইও) মুহাম্মদ মাহবুব আলম শাওন ভুঁইয়া, লোহাগাড়া শাহপীর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব মুহাম্মদ আবু বক্কর, লোহাগাড়া থানার এসআই মামুন মিয়াসহ আনসার বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফ উল্যাহ জানান, গত কয়েকদিন ধরেই আমার কাছে অভিযোগ আসছিলো- লোহাগাড়া শাহপীর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের গেইটে কিছু ইভটিজার ছাত্রী পরীক্ষার্থীদেরকে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করছে। বিষয়টি আমলে নিয়েই আজকে আমি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছি।

আমার সাথে সিভিল ড্রেসে থাকা আনসার সদস্যদেরকে দিয়ে ঐ ইভটিজারকে আটক করিয়েছি। কয়েকজন পালিয়ে গেছে। তবে ইভটিজিং ও কিশোর গ্যাং এর বিষয়ে আমরা সবসময় কঠোর অবস্থানে রয়েছি। যে কোনো জায়গায় ইভটিজিং বা কিশোর গ্যাং এর উপদ্রবের তথ্য থাকলে আমাদেরকে জানালে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নিবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.