মোঃ এনামুল হক নড়াইল জেলা প্রঃতিনিধি।

নড়াইল জেলা লোহাগড়া উপজেলায় এক বিয়ের দাওয়াত না দেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে শিশুসহ ১০ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) বিকালে লোহাগড়া উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের রামেশ্বরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ৩ জনকে আটক করেছে। আহত রিপন শেখ, লোকমান মোল্লা, নজির শেখ, ইদ্রিস মোল্লা, জোহরা বেগম, রানা শেখ, জিন্না, নাইম, রাসেল শেখ জামাল শেখ, রাশেদুল সহ সকলেই লোহাগড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রামেশ্বরপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বাবু শেখ ও আজগর মোল্যার লোকজনের মধ্যে বিরোধ চলছিল। গত কয়েকদিন আগে বাবু শেখের দলের রানা শেখের বিয়ে হয়। এ বিয়েতে প্রতিপক্ষ আজগর মোল্যার লোকজনকে দাওয়াত না দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়। এরই জের ধরে মঙ্গলবার বিকালে আজগর মোল্যার লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে প্রতিপক্ষ জামাল শেখের বাড়িতে হামলা চালায়।

এ সময় উভয়পক্ষের লোকজন দেশী অস্ত্র লাঠিসোটা, রামদা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে বৃদ্ধ নারীসহ উভয়পক্ষের নারী-শিশু সহ ১০ জন আহত হয়।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আবু হেনা মিলন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় আলমগীর শেখ, বাবু শেখ ও জিন্নাত শেখকে আটক করা হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *