ভারত থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।
সব বাধা বান্ধকতাকে সরিয়ে ভারতের তিন ফুট তিন ইন্চি উচ্ছার আই পি এস অফিসার আরতি ডোগরা। জন্ম থেকে বামন হয়ে জন্ম নিয়েছিলেন ভারতের এই প্রথম বামন অর্থাৎ বেটে আই পি এস পুলিশ সুপার শ্রীমতী আরতি ডোগরা। জন্ম পর তার মা ও বাবাকে ডাক্তার সাহেবরা বলে দিয়েছিলেন আর পাচটি বাচ্চার মতো ও নয়। এবং ও শারীরিক প্রতিবন্ধী। তাই ওকে সম্পূর্ণ ভাবে আলাদা রেখে ওকে মানুষ করতে হবে। এই উত্তরাখণ্ড এর বাসিন্দা আরতি ডোগরার।

সেই থেকে শুরু আরতি ডোগরার বাবা ভারতের সেনাবাহিনীর একজন দক্ষ অফিসার ও মাতা শ্রীমতী কুমকুম ডোগরা একটি ইস্কুলের শিক্ষিকা। বাবা রাজেন্দ্র ডোগরা ভারতীয় সেনাবাহিনীর সদস্য হওয়ার কারণে তার মেয়ে শ্রীমতী আরতি ডোগরা কে দেরাদুনের বেলহাম গালস ইস্কুলে পড়াশোনা করতে পাঠান।

ওখানে পড়াশোনা শেষ হলে আরতি ডোগরা উচ্ছ শিক্ষার জন্য দিল্লির লেডি শ্রীরাম কলেজ থেকে গ্রাজুয়েট পাশ করেন ইকোনমিক নিয়ে। পরে নিজের মনের জোর ও সব বাধা বান্ধকতাকে সরিয়ে ফেলে নিজেক তৈরি করেন ইন্ডিয়ান পুলিশ সার্ভিস কমিশন থেকে আই পি এস অফিসার হিসেবে যোগ্যতা অর্জন করার জন্য পরিক্ষা দেন। এবং সাফল্য অর্জন করেন, ২০০৬,সালে, সেই থেকে শুরু মনের জোর নিয়ে কাজ করার। অনেক বাধা বান্ধকতাকে সরিয়ে দিয়ে শুরু হয় কাজ করার। আজ আরতি ডোগরা ভারতীয় পুলিশ সার্ভিস কমিশন একজন দক্ষ অফিসার। বর্তমানে তিনি ভারতের রাজস্থান এর আজমের এ কাজ করছেন।

এবং ভারতের রাস্ট্রপতি ও বহু সম্মান পেয়েছেন তার ভালো কাজ করার জন্য। তার কথা ইচ্ছা ও মনের জোর থাকলে সব কিছুকেই হার মানাতে পারা যায়। তার জীবনের বহু সাফল্য এসেছে ভালো কাজ করার চেষ্টা করার জন্য। তিনি যে বামন ও তার উচ্চতা, তিন ফুট তিন ইন্চি তা তিনি ভাবে না। কাজ করার জন্য সব বাধা বান্ধকতাকে সরিয়ে দিলে সাফল্য অর্জন করা যায় তা তিনি দেখিয়ে দিয়েছেন।। ভারত থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.