আসলাম উদ্দিন আহম্মেদ, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
জেলার রাজারহাট সদর ইউনিয়নের পোদ্দার পাড়া নাটুয়া মহল দক্ষিণ প্রাণপতি গ্রামের মৃত খোকার একমাত্র ছেলে সুধাংশু পেশায় ইজিবাইক চালক ।
গত শনিবার দিবাগত রাতে তিনি বাজার থেকে তার নিজের জন্য লুঙ্গী ও জামা কিনে আনেন। তার স্ত্রীর জন্য কাপড় না আনায় এ নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বাঁধে। এক পর্যায়ে সুধাংশু অতি উত্তেজিত হয়ে তার স্ত্রীকে অতিরিক্ত মারধর করতে থাকে। তার মা বুলবুলি রানী এগিয়ে এলে তাকেও মারধর করে দূরে তাড়িয়ে দেয়। তারপর চলে বেদম প্রহার।

গায়ত্রী রানীর আর্ত চিৎকারে ঘরে ঘুমিয়ে থাকা বারো বছরের মেয়ে সুচিত্রা তার মাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে তাকেও মারতে উদ্যত হলে সেও পাশের বাড়িতে গিয়ে লুকায়। এরপর সুধাংশু বাড়ির গেট লাগিয়ে পৈশাচিক উন্মাদনায় প্রহার করতে থাকলে একপর্যায়ে মারা যান গায়ত্রী রানী। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। স্ত্রীর মৃত্যু নিশ্চিত হলে সুধাংশু বাড়ি থেকে পালিয়ে গেলে ২১ এপ্রিল রবিবার দুপুরে রাজারহাট থানা পুলিশের একটি চৌকস দল তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ও স্থানীয় সোর্সকে কাজে লাগিয়ে সিঙ্গারডাবড়ী হাট এলাকা থেকে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
রাজারহাট থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তা জানান, গায়ত্রীর পিতা বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *